ইস্রাফিল আকন্দ রুদ্রের কবিতা

প্যারাসিটামল

হিমশীতল, সকালের নরম রোদে হাঁটি শতবর্ষী ছাতিমতলায়

সেই আনন্দে কাতর; আছি এবং থাকি বেঁচে তোমার দায়।

বয়স যখন সাত তখনই করেছো ভালোবাসার সুখে আমার ভেতরটা জখম

জীবনকে তর্জমা করে জেনেছি— ‘তুমিই সেই প্রথম!’

তোমার হাতের মলিন স্পর্শ আমার মুখে, হাতে, বুকে বিরাজমানই রা তারা হয়ে নয়া দিগন্ত উন্মোচিত করে, সুখে লেগে থাকে আযান।

 

আমার ফুসফুসের ত্রিকোণাকার ফাঁপা অঙ্গে করি তোমার খোঁজ

ভালোবেসে বিদ্রোহ করে প্রেম বৃদ্ধি করি রোজ।

সুখ ও শোকে দ্রবীভূত, আনন্দ-বেদনা আছে মিশে—

ঝগড়া শেষে বুঝি তুমি আমার প্যারাসিটামল দুঃখ নাও শুষে।

বহু দ্রোহের আগুনে পুড়েও শেষমেশ ঘটে মিলন—

দুঃখের পরমাণু একত্রিত হয়ে করে সুখের অণু উৎপাদন।