ঘরবন্দি সময়ের গল্প : ইউটিউব দেখে প্রোগ্রামিং শিখছি

সিনথিয়া আহমেদ
কোভিড-১৯ হলো একটি নতুন ভাইরাস যা অতীতের সার্স ভাইরাস এবং কয়েক ধরণের সাধারণ সর্দি-জ্বর জাতীয় ভাইরাসের পরিবারভুক্ত।

বর্তমানে চারিদিকে করোনাভাইরাস এর ভয়। আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন বেড়েই যাচ্ছে।প্রয়োজন ব্যতীত বাইরে বেরােনো নিষেধ। জনজীবন হঠাৎ থমকে দাঁড়িয়েছে। মানুষ নিজ ঘরে বন্দি। সবার মতো আমিও।

নিয়মিত হাত ধোয়া ও মুখে হাত না দেওয়ার অভ্যাস করছি। আজ ৮ ই মে, ২০২০। হোম কোয়ারেন্টিনের ২২তম দিন। ১৭ই মার্চের জন্য কবিতা আবৃত্তির প্রস্তুতি নিচ্ছিলাম। তারপর রাতে টিভিতে দেখলাম আগামীকাল থেকে স্কুল-কলেজ বন্ধ। সাথে আমার সকল প্রাইভেটও বন্ধ। এত দিন পর একটা ছুটি পেয়েছি। কে জানে একেই হয়তো বলে আসল ছুটি। প্রতিদিন কলেজ, প্রাইভেট, কোচিং বাবদ প্রায় ১১ ঘন্টা বাইরে থাকতে হতো। তাই এখন চাই আমার বিছানায় গা ছেড়ে দিয়ে বই পড়তে ও বিশ্রাম নিতে। তবে সবচেয়ে ভালোলাগার বিষয় হলো আমারা সবাই মিলে একসাথে খাবার খাচ্ছি। এছাড়া আমি নিয়মিত অনলাইন এ ক্লাসগুলি করছি, ক্লাসগুলো আমার খুব ভালো লাগছে। ইউটিউব দেখে প্রোগ্রামিং শিখছি। কোভিড-১৯ এর অনলাইন অনেকগুলো কোর্স সম্পন্ন করায় সার্টিফিকেট অর্জন করেছি। তবে কর্মহীনরা অনেক কষ্টে জীবনযাপন করছে। তাদের জন্য অনেক খারাপ লাগছে।আল্লাহর কাছে একটাই প্রার্থনা যেন আমরা সবাই এই ভয়াবহতা থেকে রক্ষা পাই।

সিনথিয়া আহমেদ- একাদশ শ্রেণি, বগুড়া ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ, বগুড়া।

আপনার মতামত দিন