চারদিকটা আমার পরিপূর্ণ তবুও রিক্ততা

জীবনের উল্লাসে
শিহাব আরমান মনির

আকাশে উড়ে যাচ্ছে বোমারু বিমান,
একেকেটা বিমান বোমা ফেলে যায়
অন্তর্ভূমিতে।
আমাকে মারার জন্য নয়,
আমার নশ্বরদেহ কে অকেজো করার জন্যও নয়;

কারণ,ওরা জানে আমাকে মেরে ফেললে
আমি নিজেকে আবার জন্ম দেব
শত সহস্র বছর ধরে তোমাকে দেখবো বলে,
তোমার খঞ্জনআঁখিদ্বয়কে দেখবো বলে;
কখনও সচ্ছ কাঁচের ভেতরে,কখনও পৃথিবীর আলোর সোজা প্রতিফলনে।

ওদের বিমানের বোমা আমাকে পঙ্গু বিকৃত করে না,
আমি তোমার কাছে গিয়ে পঙ্গু হবো বলে।

চারদিকটা আমার পরিপূর্ণ তবুও রিক্ততা,
মন কিণাঙ্ক ভীষণাকারে;
আমি বর্বর তাই আশায় বাঁধি ঘর পরম অকুতোভয়ে।
উল্কার মতো অমিত বেগে চলেছি আমি তোমাপানে,
ত্রস্ত ধরণী না না বলে চপলা আমায় ঠেকাতে।

কারণ,তুমি নাকি ধ্বংস হবে আমার কালানলে,
বল তোমার সৃষ্ট অগ্নি তোমায় ধ্বংসাবে কেমনে?
শুষিয়া লয়েছি সিন্ধু সুরা, অগ্নি নেভাতে।

জীবনের প্রয়োজনে এসেছি আমি,হারবো জীবনের উল্লাসে।

আপনার মতামত দিন