পৃথিবীর সবচেয়ে প্রাচীন বইমেলা

সোয়াইদ সামীহ পূর্ণ
ফ্রাঙ্কফুট (Frankfurt) বইমেলা পৃথিবীর সবচেয়ে প্রাচীন অথাৎ প্রায় ৫০০ বছরেরও পুরনো ও ঐতিহ্যবাহী বইমেলা। জামা’নিতে অনুষ্ঠিত এই বইমেলাকে জার্মানিরা বলে ফ্রাঙ্কফুট বুচমেস। আর এর কারণ এর সাথে মিশে আছে বিখ্যাত জোহানস গুটেনবার্গ এর নাম। প্রায় ৫০০ বছর আগে ফ্রাঙ্কফুট শহরের একদম কাছে মেঞ্জ শহরে গুটেনবার্গ সহজে বহনযোগ্য ছাপাখানা তৈরী করতে সক্ষম হয়েছিলেন। তার পরপরই মুদ্রনশিল্পের বিপ্লব ঘটে। রাতারাতি বইয়ের দাম কমে সাধারণ মানুষের হাতের নাগালে এসে পড়ে। কিন্তু তার আগে বই লিখতে হতো হাতে হাতে। তাতে সময় আর শ্রমের পাশাপাশি দামও হতো প্রচুর। তাই সেই সময় জার্মানির চার্চের লাইব্রেরির বই হারানোর ভয়ে শিকল দিয়ে বেঁধে রাখা হতো।
কিন্তু গুটেনবার্গ-এর ছাপাখানা বিপ্লবের কিছু দিন পর ফ্রাঙ্কফুট শহরে স্থানীয় কিছু বই বিক্রেতার আগ্রহে ছোট একটি বইমেলার আয়োজন করা হয়। ধীরে ধীরে এ মেলা দর্শক-ক্রেতা-পড়ুয়া সবার দৃষ্টি কাড়ে। ১৭ শতক পর্যন্ত এই বইমেলা ইউরোপের সবচেয়ে জরুরি বইমেলায় পরিণত হয়। পরের সময়ে রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক কারণে লিপজিগ বইমেলায় এ মেলা স্তানান্তর করা হয়। অনেক বিরতির পর দ্ধিতীয় বিশ্বযুদ্ধের শেষে ১৯৪৯ সালে ফ্রাঙ্কফুট বইমেলা সেইন্ট পলস গির্জায় আবার শুরু হয়। তাতে এ বইমেলা তার হারানো ঐতিহ্য ফিরে পায়।
প্রতি বছর এই মাসের মাঝামাঝি জার্মানির ফ্রাঙ্কফুট শহরে এ মেলা শুরু হয়। পাঁচ দিনের এই মেলায় প্রথম তিন দিন শুধু বই ব্যবসার সাথে জড়িতরা অংশ নিতে পারেন।
বাকি দুদিন সাধারণ মানুষরা মেলায় ঢোকার সুযোগ পান। প্রতিবছর সারা বিশ্ব থেকে হাজার হাজার প্রকাশক, বিক্রেতা, লেখক, পাঠক, দর্শক, ব্যবসায়ী, সাংবাদিকসহ আরও অনেকে অংশ নেন।।
তথ্যসূত্র: Google & Wikipedia

সোয়াইদ সামীহ পূর্ণ, ১০৩ উত্তর তাজমহল রোড়, মিরপুর, ঢাকা।

আপনার মতামত দিন