প্রশংসায় ভাসছে তুষারের চাটগাঁইয়া গান

পরিচয় ডেস্ক
সোস্যাল মিডিয়ার দেয়ালে দেয়ালে ঘুরছে চট্টগ্রামের একটি আঞ্চলিক গান। ‘‘আই ভাত ন হাইয়ুম, গুসসা ওইয়ুম, আর মনত জ্বালা, বেয়াজ্ঞুনুর বউ সুন্দর সুন্দর, আর বউয়া হালা।’’ অর্থ‍াৎ ‘আমি ভাত খাবো না, রাগ করবো, আমার মনে জ্বালা, সবার বউ সুন্দর সুন্দর আমার বউ কালা। এমন মজার কথার চমৎকার একটি গান ‘আর বউয়া হালা’।

গানটি ইতোমধ্যেই ব্যাপক সাড়া ফেলেছে ম‍ানুষের মাঝে। শুধু চট্টগ্রামের মানুষই নয়, পুরো দেশের মানুষ গানটি গ্রহণ করছে। চট্টগ্রামেরই ছেলে কণ্ঠশিল্পী হাসনাত তুষারের কণ্ঠে এই গানটি এখন সোস্যাল মিডিয়া মাতিয়ে বেড়াচ্ছে।

চমৎকার এই গানটি প্রখ্যাত গীতিকার আমান উল্লাহর লেখা ও সুরের দীর্ঘদিন আগের আঞ্চলিক গান হলেও এটি সারাদেশে অন্য কোন শিল্পীর কণ্ঠে এভাবে প্রশংসিত হয়নি, যেমনটি হয়েছে তুষারের কণ্ঠে। এই নতুন আয়োজনে গানটির সংগীত করেছেন শাহরিয়ার রাফাত। সম্প্রতি জি সিরিজের ব্যানারে গানটি প্রকাশিত হয়েছে। এবং প্রকাশের পরপরই গানটি ছড়িয়ে পড়তে থাকে দেশের সর্বত্র। গানটি ইতোমধ্যেই একটি ফেসবুক পেজ থেকে মিলিয়ন ভিউ অতিক্রম করেছে। এছাড়া বিভিন্ন প্ল্যাটফর্ম ও অনেকেই গানটি নিজেরা ফের কাভার করছেন, নয়তো গানের সাথে অভিনয় করে নিজেদের সোস্যাল আইডিতে প্রকাশ করছেন।

এই প্রসঙ্গে শিল্পী হাসনাত তুষার বলেন, আমি অনেকদিন থেকে গান করলেও এই গানটি আমাকে নতুনভাবে পরিচয় করিয়ে দিয়েছে সঙ্গীতাঙ্গনে। আমি সত্যিই আপ্লুত, শ্রোতাদের অকুণ্ঠ ভালোবাসায়। আমি শ্রোতাদের এই ভালোবাসাকে সঙ্গে নিয়েই আগামীর পথ চলতে চাই।

তিনি আরও বলেন, চট্টগ্রামের নিজস্ব ভাষা আছে, গান আছে, কৃষ্টি আর ঐতিহ্য আছে। চাটগাঁইয়া গানের প্রতি সারা দেশের মানুষের একটা আকর্ষণ আছে। আমি চট্টগ্রামের ছেলে হিসেবে চট্টগ্রামের ‍গান দিয়েই মানুষের মন জয় করতে পেরেছি এটা আমার জন্য একটি বিরাট পাওয়া।

আপনার মতামত দিন