শিশু অভিনয়শিল্পী রোহানের গল্প

পরিচয় প্রতিবেদক:
রিজওয়ান রোহান। আদমজী ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুলে পঞ্চম শ্রেণিতে পড়ে। এই ছোট্ট বয়সেই দেশজোড়া সুনাম তার। অভিনয় ও মডেলিংয়ে বর্তমান সময়ের শিশুশিল্পীদের মাঝে অন্যতম একজন রিজওয়ান রোহান। রোহান অনেকগুলো নাটক ও বিজ্ঞাপনচিত্রে কাজ করেছে। কাজ করেছে চলচ্চিত্রেও। তার অভিনীত উল্লেখযোগ্য নাটক- মাবরুর রশিদ বান্না পরিচালিত ‘এক্লিপ্স’। জয়ন্ত রোজারিও পরিচালিত ‘উপহার ১’, ‘তোমাকে ভালোবাসি মা’, ‘রং’, ‘ফুল ঝুড়ি’, কিশোর মাহমুদ পরিচালিত টেলিফিল্ম ‘বোধ’। নেলসন মন্ডল পরিচালিত ‘প্রতিচ্ছবি’, ‘কিরা’, ‘গায়েব’। অভিনয় করেছে মেহেদী হাসান হৃদয় এর পরিচালিত ‘ডেভিল’ ও ‘সিঙ্গারা বাবু’ ওয়েব সিরিজ এ । এবং অভিনয়ে করেছে গিয়াস উদ্দিন সেলিম এর পরিচালনায় ও মাসুম রেজা এর রচনায় করোনা সচেতনতা মূলক ৮ পর্বের ধারাবাহিক নাটক ‘ভালো থাকি ভালো রাখি’ নাটকে। এছাড়াও দুরন্ত টিভিতে ধারাবাহিক নাটক ‘বাবা থাকে বাসায়’ অভিনয় করেও বেশ সুনাম অর্জন করেছে রোহান। ‘বাবা থাকে বাসায়’ নাটকে তোমরা যাকে উদয় বলে চিনো সেই হচ্ছে আমাদের সবার প্রিয় রোহান। উদয় নামেই সে বেশ পরিচিতি পেয়েছে সারাদেশে।
রোহানের প্রথম কাজ সরকারিভাবে উনিসেফ বাংলাদেশ ও বাংলাদেশ টেলিভিশনের জন্য নির্মিত মাতৃদুগ্ধ বিষয়ক সচেতনতা মূলক ৭টি নাটকে। জানলে অবাক হবে, তখন রোহানের বয়স ছিল মাত্র দুবছর! নাটকগুলো এখনো ঢাকার মহাখালী ICDDRB এর মেইন গেইটে স্ক্রিনে দেখানো হয়।
আরেকটি মজার কথা শুনবে? তো বলছি, প্রতি মা দিবসে গত ৫ বছর থেকে রোহান অভিনীত ‘তোমাকে ভালোবাসি মা’ নাটকটি এনটিভিতে প্রচারিত হচ্ছে। অার ৬ বছর থেকে প্রতি বড়দিনে প্রচারিত হচ্ছে ‘উপহার ১’ নাটকটি।
রোহান প্রথমবার বিজ্ঞাপনের মডেল হয়েছে ওশান সিটির একটি বিজ্ঞাপন চিত্রে। এরপর ইফাত এগি নুডলস, রবি, বসুন্ধরা খাতা, সেভলন হ্যান্ড ওয়াশ, প্রাণ জুস্, প্রাণ আচার এর টেলিভিশন বিজ্ঞাপন চিত্রে। এছাড়া বিভিন্ন পোশাক ব্রান্ডের মডেলও হয়েছে রোহান।
জাতিরজনকের উপর নির্মিত ‘চিরঞ্জীব মুজিব’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করে সবাইকে আরেক বার তাক লাগিয়ে দিয়েছে রোহান। তার অভিনয়ে সবাই মুগ্ধ হয়েছে। ‘এডভেঞ্চার অব সুন্দরবন’ চলচ্চিত্রেও ভালো অভিনয় করেছে।
রোহান অবসরে গান করে। তবে বাংলা গান নয়। ইংলিশ গান। বাংলা গানের সুর তুলতে নাকি তার অনেক কষ্ট হয়! সঠিকভাবে সুর তুলতে পারে না। তাই ইংলিশ গানই করে রোহান। একা একা ইউটিউব থেকে প্রাকটিস করে। অভিনয় আর গানের বাইরেও রোহান অনেক ভালো ছবি আঁকতে পারে। আবৃত্তি ও সাঁতারও পারে রোহান। এছাড়া বিজ্ঞাপনের জিঙ্গেলও দিতে পারে রোহান। অনেকগুলো বিজ্ঞাপনে জিঙ্গেল দিয়েছে।
রোহান বড় হয়ে পাক্কা অভিনেতা হতে চায়। সেই প্রচেষ্টাই চালিয়ে যাচ্ছে সে। আর হ্যা‍ঁ ‍আরেকটি কথা- রোহান যে এত্তগেুলো প্রতিভার অধিকারী আর তার এগিয়ে যাওয়ার পেছনে রয়েছে তার মায়ের সার্বক্ষণিক অনুপ্রেরণা। তার মা আশা মজিদও একজন থিয়েটার কর্মী ও অভিনয় শিল্পী। তিনি ১৯৯১ থেকে থেকে থিয়েটারের সাথে আছেন। অনেনগুলো নাটক ও বিজ্ঞাপনে কাজ করেছেন। এবং বিজ্ঞাপন-নাটকে জিঙ্গেলও দিয়ে থাকেন। রোহানকে নিয়ে তার মায়েরও অনেক স্বপ্ন।

আপনার মতামত দিন