সত্যজিৎ বিশ্বাসের জোকস সমগ্র

জোকস সমগ্র
সত্যজিৎ বিশ্বাস

রহস্যভেদঃ

অফিস কলিগঃ এই বয়সেও মেদভুড়িহীন, রহস্য কি ভাই?
রাকিব সাহেবঃ রহস্য কিছু না, তিনবেলা ব্যায়াম করি এই যা…

অফিস কলিগঃ এত সময় পান কেমনে? ভাবী কিছু বলে না?
রাকিব সাহেবঃ নাহ্‌ কিছু বলবে কেন? বরং আরো ব্যায়াম করার জন্য উৎসাহ দেয়।
অফিস কলিগঃ বলেন কি ভাই, আপনি তো বিশাল লাকি! তা, কি ব্যায়াম করেন তিনবেলা?
রাকিব সাহেবঃ সকালে ঘুম থেকে উঠে ঘর ঝাড়ু দেই, বিকেলে অফিস থেকে ফিরে কাপড় ধুই, আর রাতে ঘুমানোর আগে কাপড় ইস্ত্রি করি।

হাত দেখাঃ

পরীক্ষার আগে প্রীতমঃ জ্যোতিষী বাবা, আমার হাতটা দেখে দিবেন?

জ্যোতিষী বাবাঃ তুই তো সবার থেকে আলাদা রে। তোর সাথের ছাত্ররা একদিন অবাক হয়ে তোকে দেখবে।

পরীক্ষার রেজাল্টের পর প্রীতমঃ জ্যোতিষী বাবা, এটা কি হলো? লাখ লাখ ছাত্রছাত্রী জিপিএ-৫ পেল। শুধু আমিই পেলাম না!!

জ্যোতিষী বাবাঃ কিরে, বলেছিলাম না? ফললো তো কথা দুটো?

 

আকাশ কুসুমঃ

শিক্ষকঃ “আকাশ কুসুম” দিয়ে একটা বাক্য রচনা করো তো?

ছাত্রঃ বাংলাদেশ একদিন বেকার সমস্যা মুক্ত হবে।

শিক্ষকঃ তো? এর মধ্যে আকাশ কুসুম কোথায় !!!

ছাত্রঃ কি যে বলেন স্যার, পুরো ব্যাপারটাই তো আকাশ কুসুম। আর আপনি খুঁজে পাচ্ছেন না?

ইন্টারভিউঃ

রেলের ইন্টারভিউ চলছে…

প্রশ্নকর্তাঃ ট্রেন আর মানুষের মধ্যে মিল কোথায়?
উত্তরদাতাঃ দুজনেরই ধোঁয়া ছোটে, শব্দ হয়। তবে ট্রেনের ছোটে সামনে দিয়ে আর মানুষের ছোটে পেছন দিয়ে।
প্রশ্নকর্তাঃ ট্রেনের বেশি ক্ষমতা না মানুষের?
উত্তরদাতাঃ অবশ্যই মানুষের। ট্রেন তো শুধু ট্রেন লাইন দিয়ে চলতে পারে। আর মানুষ – লাইনবেলাইন সব জায়গাতেই চলতে পারে।
প্রশ্নকর্তাঃ বলেন তো- সময়সূচিতে কেন ১২টার পর ১টা, ২টা এভাবে না লিখে ১৩টা, ১৪টা এভাবে লেখা থাকে?
উত্তরদাতাঃ উত্তেজিত জনগন যাতে হিসাব করে কুল না পায় ট্রেন কতক্ষন লেটে আছে।

দাম নিয়ে নিবেঃ

স্ত্রীঃ এই শুনছো, পানিতে দুর্গন্ধ আর ট্যাপ থেকে কেঁচো বের হচ্ছে।
স্বামীঃ আরে, আস্তে বলো। ওয়াসার লোক শুনতে পেলে, পানির বিলের সাথে কেঁচোর দামও নিয়ে নেবে।

ভাল বন্ধু বলেই তোঃ

বিচারকঃ আপনারা বলছেন- আপনারা দুজন খুব ভালো বন্ধু, তাহলে নিজেদের ঝামেলা নিজেরা মিটিয়ে নিতে পারলেন না?
আসামিদ্বয়ঃ দুই বন্ধু লুঙ্গি কাছা মেরে লাঠি নিয়ে তাইতো করছিলাম হুজুর। তাই দেখে পাড়া পড়শি জড়ো হয়ে তারাও জড়িয়ে পড়লো। এরপর এলো বাজারের সব লোক। তারপর গ্রাম শুদ্ধ লোক। বিশ্বাস করুন হুজুর। আমরা কাউকে ডাকিনি। এরমধ্যে কোত্থেকে পুলিশ এসে আমাদের ধরে নিয়ে এলো। আমাদের কি দোষ বলুন?

বাজেটঃ

স্যারঃ বলতো- বাজেট মানে কি?

ছাত্রঃ বা-বাপের
জে- জেবের
ট- ট্যাকা

আপনার মতামত দিন