সোশ্যাল মিডিয়ার দেয়ালে দেয়ালে ঘুরছে দিহান অভিনীত বিজ্ঞাপনচিত্র

পরিচয় প্রতিবেদক:

বছর ঘুরে আবার দরজায় কড়া নাড়ছে কোরবানির ঈদ। মুসলমানদের এই দ্বিতীয় বৃহত্তম উৎসব ঘিরে ছোট-বড় সবার মাঝেই বিরাজ করে আনন্দ আর উন্মাদনা। আর ছোটদের মনে তো তার মাত্রা ছাড়িয়ে যায়। গরু দেখা, গরুর কাছে যাওয়া, আদর করা, ঘাস খাওয়ানো এমন উন্মাদনা ঘিরে থাকে ছোটদের। কিন্তু গত দুবছর ধরে মহামারী করোনা ভাইরাসের আক্রমণে বিপর্যস্ত মধ্যবিত্ত পরিবার। অনেক পরিবারই হারিয়েছে কোরবানি দেয়ার সামর্থ্য। সেই উপলব্ধিটাই একটি বিজ্ঞাপনচিত্রে নিপুনভাবে উঠে এসেছে। সেই সাথে প্রতিবেশী হিসেবে প্রতিবেশীর প্রতি যে ভালোবাসা ও সৌহার্দ্যপূর্ণ মনোভাব ও কর্তব্য রয়েছে তার চমৎকার উপস্থাপন মানুষের হৃদয় ছুয়ে গেছে। আশফাকুর রহমান রবিনের কনসেপ্টে রোহিত সাধু খান লিখেছেন বিজ্ঞাপনচিত্রটির স্ক্রিপ্ট। গতবছর বিজ্ঞাপনচিত্রটি নির্মাণ করেছেন বাপ্পা মাহমুদ। গল্পের পাশাপাশি সবার মন কেড়েছে বিজ্ঞাপনে অভিনয় করা ছোট্ট অভিনয় শিল্পী আরিয়ান মোহাম্মদ দিহান।

বিজ্ঞাপন চিত্রের শুরুতেই দেখা যায় প্রতিবেশীর কোরবানির গরুর কাছে গিয়ে ঘাস খাওয়াচ্ছে, আদর করছে ছোট্ট দিহান। কিন্তু প্রতিবেশীর আচরণে ভয় পেয়ে যায় দিহান। তার মা তাকে নিয়ে আসে সেখান থেকে। সে বাবার কাছে জানতে চায়- ‘বাবা, আমাদের কোরবানির গরু কবে আনবে?’ বাবার চোখে জল চলে আসে। ঈদের দিন দিহানের মন খারাপ থাকে। বাসায় ভালো রান্না হলেও সে খেতে আগ্রহী না। এমন সময় প্রতিবেশী এসে দরজায় নক করে। আর দিহানের বাবা মাকে ডেকে নেয় কোরবানিতে। নাতির বয়সী দিহানকেও কোলে তুলে নেয়, আদর করে।

এমন চমৎকার গল্পের বিজ্ঞাপনচিত্রটি ছিলো একটি আমের জুস কোম্পানির। যা এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় মানুষের টাইমলাইনে ঘুরে বেড়াচ্ছে। বিভিন্ন গ্রæপ, পেজ ও আইডি মিলিয়ে কোটি ভিউ ছাড়িয়েছে বিজ্ঞাপনচিত্রটির।
দিহানের পুরো নাম আরিয়ান মোহাম্মদ দিহান। সে রাজধানীর বিয়াম ল্যাবরেটরি স্কুলে স্ট্যান্ডার্ড ওয়ানে পড়ছে। মুক্তিযুদ্ধের চলচ্চিত্র ‘১৯৭১ এর সেই সব দিন’, ধারাবাহিক নাটক ‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’ ও বিশেষ নাটক ‘স্টেডিয়াম’ এ অভিনয় করেছে সে। এছাড়া বেশ কিছু স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠানের টিভিসি-ওভিসিতেও অভিনয় করেছে দিহান।

আপনার মতামত দিন