সৌরভ হাসানের গল্পগ্রন্থ- হলদে পাখির গান

পরিচয় ডেস্ক:
অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০২১ এ প্রকাশিত হবে সৌরভ হাসানের গল্পগ্রন্থ-হলদে পাখির গান  বিসর্গ প্রকাশনী থেকে।

হলদে পাখির গান গল্পগ্রন্থের প্রতিটি গল্পের মধ্যেই আলাদা একটা গল্প রয়েছে। সেই ‘আলাদা’ গল্পটা লেখক অতি সন্তর্পণে এড়িয়ে গিয়েছেন। গল্পগুলো পড়ার পর পাঠকের মনে কিছু ভাবনা জন্ম নিলেও নিতে পারে। পাঠক মনে করতে পারেন, গল্পটা সম্ভবত তারই। কিংবা তার খুব পরিচিত কারও প্রতিনিধিত্ব করছে গল্পের চরিত্র।

হলদে পাখির গান পড়ে আপনার জীবন বদলে যাবে- এমন কোনো গ্যারান্টি লেখক দিতে পারেননি। তিনি বড়জোড় এতটুকু বলতে পারেন, বইয়ের গল্পগুলো পাঠ করার পর পাঠকের চিন্তায় নতুন কিছু যোগ হতে পারে।

প্রচ্ছদ

হলদে পাখির গান গল্পগ্রন্থের তিনটা গল্প থেকে কিছু অংশ-
“মাসুম একটা সিগারেট ধরালো। বেশ আয়েশ করে সিগারেটের ধোঁয়া ছাড়ছে আকাশে। ধোঁয়ার সিঁড়ি মুখ বেয়ে উঠলে চোখটা একটু জ্বলে ওঠে। একটু পানিও বের হয়। এই পানিটা বাবার মৃত্যুর না-কি সিগারেটের ধোঁয়ার, ঠিক বোঝা গেল না। সিগারেটে শেষ টানটা দেবার সময় মাসুম বুঝতে পারলো, আজ থেকে সে মুক্ত। তার কোনো বাধা নেই।”

“হেলাল গিয়ে বসলো উঠানের মধ্যখানে। পিছে পিছে এলো শিমুও। পূর্ণিমা রাত। স্বয়ং ইশ্বর নিজ হাতে ঠেলে দিয়েছেন এই অপূর্ব জোছনা। জোছনার আলোয় মুখোমুখি বসে আছে দুইজন মানুষ। খুব অচেনা মনে হচ্ছে নিজেদের। এইযে এতোদিনের পরিচয়, মনে হচ্ছিলো আগে কখনো কথাই হয়নি তাদের। যেন নতুন করে জন্ম নিলো তারা দুইজন। দূরে নাম না জানা পাখিরা ডাকছে। মৃদু বাতাস বইছে চারপাশে। শিমু হঠাৎ কেঁদে উঠলো। তার ভাইয়ার কী হয়েছে?”

“অপারেশন তাহলে শুক্রবারেই হবে। বৃহস্পতিবার রাত যেন কাটেই না। এই রাত শেষ হলেই আগামীকাল আমি হবো হলদে পাখির গর্বিত মালিক। অন্যদের চেয়ে আমাদের দাম বেড়ে যাবে বহুগুণ।”

হলদে পাখির গান
লেখক: সৌরভ হাসান
ধরণ: গল্পগ্রন্থ
প্রচ্ছদ: পরাগ ওয়াহিদ
প্রকাশনী: বিসর্গ
প্রকাশকাল: অমর একুশে বইমেলা ২০২১

আপনার মতামত দিন